পুরুলিয়ায় উলঙ্গ ব্লুফিল্মের আদলে নাচের আসর, ছৌনাচের জেলায় এ কোন উলঙ্গ নাচ ?

  • Uploaded 4 months ago in the category Live TV

    রাতের অন্ধকার চিরে মঞ্চের ফ্লাড লাইটে দুলে উঠছে নারী শরীর।মঞ্চের উপর তখন যুগল নাচ দেখাতে ব্যস্ত। নাচ বললে বোধহয় ভুল হবে। নাচের মতো করে অন্যকিছু দেখাতেই ব্যস্ত

    ...

    রাতের অন্ধকার চিরে মঞ্চের ফ্লাড লাইটে দুলে উঠছে নারী শরীর।মঞ্চের উপর তখন যুগল নাচ দেখাতে ব্যস্ত। নাচ বললে বোধহয় ভুল হবে। নাচের মতো করে অন্যকিছু দেখাতেই ব্যস্ত দুই যুবক যুবতী। সামনে লোলুপ দৃষ্টি নিয়ে চিক চিক করে উঠছে কয়েক শো জোড়া চোখ। কখনও হিন্দি গানের তালে কখনও চটুল বাংলা গানে।নাচের আঙ্গিকেই যুবতীর শরীরের বিভিন্ন গোপনাঙ্গ ছুঁয়ে যাচ্ছে যুবকের হাত,ঠোঁট। নাচের মুদ্রার আদলে মঞ্চের উপরে যেন বসেছে যৌন সঙ্গমের আসর। ডিস্কো ডান্স, পোল ডান্স, ক্যাবারে ডান্সের পর এবার প্রকাশ্যেই বসেছে ‘ভালগার’ ডান্সের আসর। ইউপি বিহার নয় ক্রমেই অশ্লীল হয়ে উঠছে গ্রাম বাংলার রাত। গানের ভাষা ‘তোর ফ্রিজে ঢোকাবো কোকাকোলা’। এই সব চটুল গানে জমে উঠছে বুগি বুগি ডান্স শো। কোথাও নাম ডান্স হাঙ্গামা কোথাও আবার যাত্রা ডান্স। যার একটাই মুদ্রা নাম যৌনতা।rnrnrnছাতা পরব উপলক্ষে খোদ পুরুলিয়া শহরের কাছেই চাকলতোড় গ্রামে প্যান্ডেল খাটিয়ে বসেছে নাচের আসর। নাম দেওয়া হয়েছে বুগি বুগি ডান্স শো। অভিযোগ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের নামে নাচের আসরে টাকা ওড়াচ্ছেন মদ্যপ দর্শকরা। সব কিছু দেখেও না দেখার ভান করে রয়েছেন মেলা কমিটি ও পুলিশ। মেলা কমিটির সাফাই অশ্লীল কোথায় ? সম্পূর্ণ তো আর নগ্ন হয়নি যুবতী । তাই দোষের কিছু দেখছেন না তারা। আর জেলা পুলিশ কর্তারা খোঁজ নেওয়ার কথা বলেই দায় সারলেন। rnrnসূত্রের খবর, এ ধরনের অনুষ্ঠানের পিছনে জড়িয়ে রয়েছে সক্রিয় চক্র। গরিব ঘরের অল্পবয়সী মেয়েদের প্রথমে বিনা পয়সায় নাচ-গান শেখানো। তারপরে ভাল রোজগারের টোপ দিয়ে তাদের দিয়ে স্বল্পবাসে নাচতে বাধ্য করা। অল্পবয়সী মেয়েদের নাচের জন্য বিহার, উত্তরপ্রদেশে নিয়ে গিয়ে বিপদে ফেলা হয় বলেও অভিযোগ। কিছু ক্ষেত্রে যৌন সংসর্গেও বাধ্য করা হয়।rnrn টাকার হাতছানি এবং সামগ্রিক সচেতনতার অভাবে মেলার ডান্স শে বন্ধ হচ্ছেনা গ্রাম বাংলায়। জানাগেছে স্থানীয় এজেন্টরাই বুকিং নেয় অনুষ্ঠানের। ১০ থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত দামে বিক্রি হয় টিকিট।রাত বাড়লে কমে আসে নর্তকীর পোশাক। তত চড়া হয় টিকিটের দাম। এক-একটি অনুষ্ঠানে দু’-তিন ঘণ্টা নাচলেই ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা হাতেহাতে পায় নর্তকীরা । তাদের দাবি টিভিতে, সিনেমায় তো এভাবেই নাচ হয় তাতে দোষের কি ? rnrnতবে পুরুলিয়ার মত লোকসংস্কৃতি সমৃদ্ধ জেলায় এই ধরণের অশ্লীল নাচের আসর বসায় প্রতিবাদে সরব হয়েছেন বিশিষ্টজনেরা।এর আগে এক শ্রেণীর ব্যবসায়ীরা মানভূমের লোকসঙ্গীত বা ঝুমুরকে কুরুচিকর পর্যায়ে নামিয়েছেন ভিডিও অ্যালবাম বানিয়ে।সেই বির্তকের পর এবার নয়া বিতর্ক প্রকাশ্যে স্টেজে ব্লু ফিল্মের আদলে বুগিবুগি বা ডান্স হাঙ্গামার মঞ্চ। আইন, কানুন, পুলিশ, প্রশাসন সবই রয়েছে। তবু অন্ধকারে রঙিন হয়ে উঠছে নারী শরীর , বাকি সবই ঢাকা পড়ে যাচ্ছে আঁধারে।

  • পুরুলিয়ায় উলঙ্গ ব্লুফিল্মের আদলে নাচের আসর ছৌনাচের জেলায় কোন নাচ ?
show more show less
    Comments (0)